April 2019
হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সবাই ভালো আছেন আজ আপনাদের জন্য নিয়ে হাজির হয়েছি Blogspot সাইট বানানোর টিউটোরিয়াল পর্ব ২ নিয়ে।
গত পর্বে আমরা একটি সাইট শুধু তৈরী করে রেখেছিলাম আজ আমরা তাকে একটি সুন্দর ডিজাইন দিবো । মনে রাখবেন সাইটের সৌন্দর্যের কারনে Visitor আকৃষ্ট হয়। আর User Friendly না হলে Visitor পালাবে তাই সবকিছু মিলিয়ে একটি ভালো Responsive সাইট বানাতে হবে আর অনেকেই আছেন যাদের কোডিং সম্পর্কে কোন জ্ঞান নেই তারা চাইলে Premium Design এর Template কিনে ব্যবহার করতে পারেন যেমন আমি Premium Blogspot Template গুলো ৩০% Discount এ বিক্রী করে থাকি চাইলে আমার থেকেও কিনে নিতে পারেন তবে যারা কোর্সে অংশ গ্রহন করবে তারা ১০ টি Premium Template Gift পাবেন তাই আপাদত কেনার কোন ঝামেলা নেই।

তাহলে চলুন আজকের টিউটোরিয়াল দেখে নেওয়া যাক যেভাবে একটি সাইটে Template যুক্ত করতে হয়

প্রথমে Blogger.Com থেকে DashBoard এ চলে যান এবং Theme Menu তে প্রবেশ করুন।

Edit HTML বাটনে ক্লিক করুন।
এখানে আপনি যে কোড দেখতে পাচ্ছেন তা সব Delete করে দিন।
এবার নিচের লিংক থেকে  WeGenius.txt ফাইল টি ডাউনলোড করে নিন।


.txt ফাইলটি ডাউনলোড হয়ে গেলে পুরো কোড কপি করুন।
টিক দেওয়া খালি জায়গায় কোড টি Paste করুন।
Paste করা হয়ে গেলে View Blog এ ক্লিক করে দেখে নিন তবে পোষ্ট করা না থাকলে দেখতে ভালো লাগবেনা। তবে নিচে Demo  ScreenShort দেওয়া হলো।

এই হলো আমাদের সাইট।
আবার Theme Menu তে যান Click Here দিয়ে দেখানো Setting Icon এ ক্লিক করুন।
No, Show Dekstop Theme On Mobile Device. নির্বাচন করে Save বাটনে ক্লিক করুন।

ব্যস হয়ে গেল আমাদের Template Installations.

আর এর সাথেই শেষ হচ্ছে আমাদের ২য় পর্ব।
আগামী পর্ব দেখার অগ্রীম আমন্ত্রন রইলো।
সবাই ভালো থাকবেন।
আজকের মত বিদায় দেখা হবে অন্য কোন দিন নতুন কিছু নিয়ে।

সৌজন্যেঃ 
হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সবাই ভালো আছেন।
আজকে চলে এলাম ৯৯ টাকায় একটি .Xyz Domain কেনার ছোট্ট ট্রিক নিয়ে ।

আমাদের মাঝে অনেকেই আছেন যারা ফ্রি Domain
এর মধ্যে সীমাবদ্ধ। 
যেমন .TK .Ga .CF .ML Domain.

সাইটের সুন্দর ডিজাইন যেমন Visitor দের আকর্ষন করে ঠিক তেমনি একটি Top Level Domain সাইটকে করে তুলে মানসম্মত। এছাড়াও Search Engine Free Domain থেকে  Premium Domain কে বেশী প্রাধান্য দিয়ে থাকে। 
তাহলে বুঝতেই পারছেন Top  Level Domain কেন বেশী জরুরী।


তাহলে এবার ৯৯ টাকা খরচ করে Top Level এর  একটি Domain কিনবো এবং সাথে বিকাশে Payment করবো চলুন শুরু করা যাকঃ


প্রথমে নিচের লিংকে গিয়ে Registration করে ফেলুন।



Customer Sign up লিংকে ক্লিক করুন।


আপনার ব্যক্তিগত তথ্য দিয়ে Register করে ফেলুন।
এবার আপনি আপনার Domain Name দিয়ে Register বাটনে ক্লিক করুন।
দেখুন. xyz সহ আরো অন্যান্য Domain আর নাম এবং মূল্য আপনার সামনে তুলে ধরা হয়েছে আপনি চাইলে যে কোন Domain নিতে পারেন তবে আমি. xyz দিয়ে পুরো কাজটি সম্পূর্ণ করতে
যাচ্ছি।
একবছরের জন্য DNS Management এবং Email Forwading সম্পূর্ণ ফ্রি তাই টিক মার্ক দিতে ভুলবেন না যেন।

আপনি যদি Hosting সেবা ব্যবহার করে থাকেন তবে Nameserver পরিবর্তন করে নিতে পারেন কিংবা পরবর্তীতে ও এই কাজ করে নেওয়া যাবে।

সব কিছু ঠিক থাকলে Bkash নির্বাচন করুন এবং Complete Order বাটনে ক্লিক করুন।


এবার বিকাশে টাকা পাঠাতে হবে তাই আপনার Bkash এর সিম থেকে *247# Dial করুন।
Payment Menu নির্বাচন করুন।
এবার উল্লেখিত নাম্বার কিংবা অন্য যে নাম্বার আপনাকে দেওয়া হবে সেই Merchant একাউন্টে টাকা পাঠাতে হবে।
আপনার পাঠানো টাকার মূল্য ৯৯ করে দিয়ে সামনে অগ্রসর হতে হবে।
এরপর Reference এ আপনার Invoice কোড টি দিন যেমন আমার টা 14561 তেমনি আপনিও একটি নতুন কোড পাবেন তাই দিয়ে দিবেন ভুল হলে সমস্যা আছে কিন্তু ভাই।
এবার Counter Number 1 দিন।
সবশেষে আপনার Bkash একাউন্টের Pin নাম্বার দিয়ে সফলভাবে Payment করুন।
এবার একটি কাজ বাকী রইলো আর তা হলো
Bkash এর TrxID এর ঘরে আপনার TrxID টি বসাতে হবে। সেটা পাবেন আপনার মোবাইলে Payment সফল হলে যে Message টি আসবে সেখানে নিচে দেখুন আমার ম্যাসেজ টি।
সবশেষে Pay Now বাটনে ক্লিক করুন।

সব কিছু ঠিক মত করলে উপরের মত একটি Confirmation Message আপনার Mail একাউন্টে চলে যাবে। এবার আপনার Dashboard এ গেলে দেখতে পারবেন Domain টি দেখাচ্ছে প্রবেশ করুন।
দেখুন আমার ডোমেইন টি Active হয়ে গেছে এবার আপনারা যদি Nameserver পরিবর্তন করতে হয় তা Setting Icon এ ক্লিক করে করে নিতে পারবেন আর আপনার সাইট যদি Blogspot হয় তবে DNS Management এ গিয়ে Cname, A, txt Record  তৈরী করে ফেলতে পারবেন তবে যদি সমস্যা মনে করেন কমেন্টে জানবেন পরের পোষ্টে তা জানিয়ে দেওয়া হবে।
এবার নিচে রইলো আমার সাইটের একটি ScreenShort যেখানে আমি Domain টি ব্যবহার করেছি।

 Basic Blogger এর একটি কোর্স ফ্রিতে শেয়ার করতে যাচ্ছি তাই কেউ যদি ইচ্ছুক হয়ে থাকেন তবে যোগদান করার দাওয়াত রইলো।

তাহলে সম্পূর্ণ এবং সঠিক ভাবে আমরা একটি Domain কিনে নিলাম তাও আবার মাত্র ৯৯ টাকায় বিকাশ ব্যবহার করে।
যারা এখনো ফ্রি Domain ব্যবহার করছেন তারা চাইলে এবার সল্প মূল্যে এই Domain ক্রয় করে নিজের সাইট টির সাথে মানানসই করে নিতে পারবেন।

যদি স্যার আপনারা আমার এই লেখাটি পছন্দ করে থাকেন তবে কমেন্ট করে আপনার মূল্যবান মতামত জানাতে ভুলবেন না কিন্তু।

আর অন্য কথা হলো আমার আগের ফেসবুক আইডিটি কেউ রিপোর্ট করে সরিয়ে নেওয়ার ব্যবস্থা করেছে তাই কেউ যদি আমাকে ফেসবুকে খুজে নিতে চান তবে আমার বর্তমান আইডিতে Friend Request পাঠানোর অনুরোধ রইলো।

অনেক কিছু বলে ফেললাম কোন কিছু ভুল করে থাকলে মাফ করে দেওয়ার অনুরোধ রইলো।

সবশেষে যদি সময় থাকে তবে ঘুরে আসতে পারেন আমার ক্ষুদ্র Blog থেকে।

তাহলে আজকের মত বিদায় দেখা হবে অন্য কোন দিন নতুন কিছু নিয়ে সাথেই থাকুন।

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সবাই ভালো আছেন।
"আজকের টপিক ওয়েবসাইট তৈরী"

আপনাদের ভিতর অনেকেই আছেন যারা Webdesign এবং  Development শিখতে চান।
তাদের কথা মাথায় রেখে শুরু করতে যাচ্ছি একটি পর্ব ভিত্তিক টিউটোরিয়াল। 
যারা সম্পূর্ণ নতুন আশা করি তাদের কাজে আসবে।
প্রথমত Basic Level এর Tutorial থেকে শুরু করবো এবং তা ধাপে ধাপে Expert Level এর দিকে অগ্রসর হতে থাকবে।

Blogger Basic থেকে Advanced Level দিয়ে আমরা আমাদের যাত্রা শুরু করবো।

★ Blogger Basic Tutorial ★

10 Popular Types Website Making Tutorial
10  Premium Template Free
Domain Configuration
Search Engine Optimization
BackLink Making
Adesence 
Template Design ( Pro Only )
Niche Site Making With Blogger (Pro Only)


তো উপরের উল্লেখিত বিষয় গুলো থাকবে আমার টিউটোরিয়াল গুলোতে।



তাহলে শুরু করা যাক প্রথম পর্ব 

"Blogspot দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরী"

আপনার দরকার হবে একটি Gmail একাউন্ট।
নতুন একটি তৈরী করতে চাইলে নিচের লিংকে যান


এবার নিচের লিংকে চলে যান



Blogger Profile এর জন্য খালি ঘরে নাম দিন।
Continue To Blogger  Button এ ক্লিক করুন।


 Create New Blog এ ক্লিক করুন।
আপনার সাইটের  Title দিন এবং সুন্দর একটি নাম পছন্দ করে Address এর খালি ঘরে বসান।
Create Blog বাটনে ক্লিক করে সামনে আগান।

Post Menu এর All এর কাজ হলো সকল পোষ্ট সামনে তুলে ধরা।
Draft এ পাবেন খসড়া করে রাখা পোষ্ট যা Published করেন নি অথবা Unpublished করে রেখেছেন ।


Static Menu এর Overview আপনাকে দেখাবে Visitor সম্পর্কীয় তথ্য।
যেমন মাস,সপ্তাহ,দিন অথবা বর্তমানে কত সংখ্যক Visitor আছে।
কোন পোষ্ট কতবার View হয়েছে।
Visitor কোন সাইটের থেকে আসছে এমন সব তথ্য।

Stats Menu এর Post এর কাজ আপনাকে Post View এবং Page View দেখানো।

Stats  Menu এর Traffic Source এর কাজ হলো যে সকল সাইট থেকে আপনার Visitor আসছে তার তথ্য তুলে ধরা।

Stats Menu এর Audience এর কাজ হলো  Visitor যে সকল দেশ থেকে আসছে যে ডিভাইস গুলো ব্যবহার করে সাইটে প্রবেশ করছে এবং যে সকল Browser দিয়ে Visit করছে তার তথ্য তুলে ধরা।

Comments Menu এর কাজ হলো সাইটের পোষ্টে করা Comments গুলো আপনার সামনে উপস্থাপন করা।

Earning  Menu তো স্বপ্ন সকল Blogger এর।
Google Adsence যা হতে টাকা আয় করা যায়।
আপনার সাইটে Adsence Approved হয়ে গেলে শুরু হয়ে যাবে আপনার একটি আয়ের মাধ্যম।

Pages Menu তে এসে আপনি চাইলে আলাদা আলাদা Page তৈরী করতে পারবেন।


 Layout Menu তে আপনি আপনার সাইটের Widget Edit এবং যুক্ত করার পাশাপাশি আরো অনেক কাজ করতে পারবেন যা আরো সামনের টিউটোরিয়াল গুলোতে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।
Theme Menu তে আপনি Theme Customize এবং Code Edit করতে পারবেন।

Settings Menu এর Basic এ গিয়ে আপনি Title ,Description এবং Privacy পরিবর্তন করতে পারবেন। সাথে Domain Configure, Https এ পরিবর্তন কিংবা Author অথবা Member যুক্ত করতে পারবেন।

Settings এর Post, Comments and Share এ আপনি Set করতে পারবেন কতগুলো পোষ্ট দেখানো হবে তা। আরো পারবেন Comments এর Setting পরিবর্তন করতে ।

Settings Menu এর Email এ গিয়ে Custom Mail এর মাধ্যমে পারবেন Mail Send করে Post Published করতে।

Settings Menu এর Language and Formatting এ গিয়ে আপনি চাইলে ভাষা এবং সময় পরিবর্তন করতে পারবেন।

Settings এর Search preference এর কাজ Robot.txt, Google Search Console , Custom Page এর মত দরকারী কাজ গুলোর Manual Setting করতে হবে।

Settings Menu এর Other এ গিয়ে Feed , Adult Content কিংবা  Google Analytics এর তথ্য পরিবর্তন করতে পারবেন।

 Settings Menu এর User Setting এ গিয়ে নির্বাচন করতে পারবেন আপনার  Profile টি Blogger এর টা দেখাবে নাকি Google+ এর টি।

তবে আজকের মত এখানে বিদায় নিচ্ছি আগামীকাল Theme এর কাজটি করবো সাথে একটি Paid Theme তো থাকছেই ফ্রি।
ইনশাআল্লাহ দেখা হবে আগামীকাল।
সৌজন্যেঃ Cyber Prince


হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সবাই ভালো আছেন।
আমরা অনেকেই স্বপ্ন দেখি সফল Freelancer হওয়ার কিন্তু সফল হই কয়জনে?

দেখা যায় ভুল পথে গিয়ে নিজের কাজ করার ইচ্ছাটাকেই হারিয়ে ফেলি।
এখানে ভুল পথ বলতে বোঝানো হয়েছে 
"সঠিক নির্দেশনা"

আপনি হয়তো অনেক কিছু সম্পর্কে জানেন কিন্তু সঠিক রাস্তা মিলছেনা আপনার প্রতিভা প্রকাশ করার।
তবে কিন্তু তা আপনার ভিতর সীমাবদ্ধ থাকবে আর যদি আপনি সঠিক জায়গায় নিজেকে উপস্থাপন করতে পারেন তবেই মিলবে আপনার প্রতিভার কদর।


আমাদের একজনের সাথে আরেক জনের চেহারা কিন্তু হুবহু মিলেনা এটাই ভালো কারণ সবাই যদি এক রকম দেখতে হতো তবে তা একঘেয়েমি হয়ে যেত ঠিক তেমনি কাজের ক্ষেত্রেও আলাদা পেশার মানুষ রয়েছে সবাই কিন্তু তার নিজ পেশায় ব্যস্ত আর সবার কিছু না কিছু স্পেশাল গুন থেকে থাকে আর এই গুনকে কাজে লাগিয়ে উঠতে হয় উপরের সিড়ি।

আপনি চাইলেই আপনার বাসার সিড়ির মত টপকে উঠে যেতে পারবেন না কারণ এই Success পাওয়ার জন্য আপনাকে অনেক কাঠ খড় পোহাতে হবে।
এর জন্য ধৈর্য্য , সময় এবং গুনের অধিকারী হতে হবে।
এখানে গুনের কথা দিয়ে বোঝানো হয়েছে আপনার কাজের পারদর্শীতা, আপনি Freelancer হতে হলে যে Webdesign , Android Development, Seo এর মত কঠিন সব কাজ জানতে হবে তা কিন্তু নয় আপনি চাইলে Article Writing , Consultation ছাড়াও হাজার সহজ কাজের ভিড়ে খুজে নিতে পারবেন আপনি যে বিষয়ে Expert সেই কাজটি।

তাহলে বসে আছেন কেন সময় নষ্ট করার জন্য?
শুরু করে দিন নিজের একটি ব্লগ অথবা খুলে ফেলুন একটি ইউটিউব চ্যানেল এবং এর পিছনে সঠিক নিয়মে সময় দিয়ে কাজ করুন দেখবেন এখান থেকেই আপনার একটি আয়ের মাধ্যম তৈরী হয়ে যাবে।
হ্যা এসব ক্ষেত্রে অন্যকে ফলো করতে পারেন তবে চেষ্টা করবেন নিজের ক্রিয়েটিভিটি প্রকাশ করার এতে সাফল্য পাবেন তাড়াতাড়ি।

ভাই এগুলো তো আগের থেকেই করি সারাজীবন কাজ করার মত কি কিছুই নাই ?

কেন থাকবে না অবশ্যই আছে আজকেই খুলে ফেলুন Freelancer এ একটি Account খুজে নিন আপনার পছন্দের কাজ। তবে একাউন্ট খোলা হয়ে গেলেই কিন্তু এর শেষ নয় আপনার প্রফেশনাল Skill বাড়ান এবং কিছু ব্যয় করুন এতে কাজ পাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে আর আপনিই বলুন আপনি যদি কাউকে কাজ দিতে চান তবে কাকে দিবেন অভিজ্ঞ যে তাকে নাকি নতুন একজনকে ?

আপনি অনলাইনে আয় করা যতটা সহজ ভাবছেন ঠিক এতটা সহজ কিন্তু নয়।

তাই মনে রাখতে হবে "কিছু পেতে হলে কিছু দিতে হয়"।

আপনি চাইলে হাজারটা মাধ্যম খুজে পাবেন অনলাইনে আয় করার তবে যদি আপনি Scam সাইটে কাজ করেন তবে তো আম ছালা দুটোই যাবে তাই কাজ শুরু করার আগে অন্তত দশ বার চেখে দেখবেন Legit সাইট কিনা।


তাই সবথেকে জনপ্রিয় Freelancer সাইটে কাজ করার জন্য Suggest করছি এখানেই আপনি আপনার ভবিষ্যৎ গড়ে তুলতে পারবেন যদি সময় এবং মেধা খরচ করতে জানেন।

চলুন আজকে থেকেই সময় দেওয়া শুরু করি এবং মন স্থির করে বলি যে যত কষ্টই হোক এর শেষ দেখে ছাড়বো।

আমিও একদিন হবো Freelancer  না বলে আজই লেগে পড়ি কি আপনি রাজি তো।

নিচের লিংকে গিয়ে সাজানো শুরু করুন আপনার ক্যারিয়ার।






ফেসবুক দিয়ে সাইন আপ না করলেই ভালো করবেন ধরুন আপনার আইডি হারিয়ে গেল এবং আপনার একাউন্টে টাকা আছে তবে তো তা গোল্লায় চলে যাবে তাই কষ্ট হলেও নিজের তথ্য দিয়ে পূরণ করুন।

এখানে কাজের শেষ নেই আপনি যে সকল বিষয়ে অভিজ্ঞ তা খুজে খুজে বের করে নিন।


দক্ষতা নির্বাচন শেষ হয়ে গেলে সামনে অগ্রসর হতে থাকুন শত হলেও আমরা ডিজিটাল পোলাপাইন পিছে ফিরে দেখার সময় আমাদের নাই।

আপনার মেইল একাউন্টে একটি ভেরিফিকেশন মেইল যাবে তা Confirm করুন।



এবার আপনার মোবাইল নাম্বার দিয়ে ভেরিফাই করে ফেলুন।


এবার আপনি যে ধরনের দক্ষতা নির্বাচন করেছিলেন সেই অনুপাতে আপনার কাজ প্রদর্শন করবে বেছে নিন আপনার কাজ।

কাজ পেতে হলে অবশ্যই আপনাকে বিড করতে হবে নয়তো কাজ পাবেন না।

যে কাজের জন্য Hire করতে চায় তাকে এমন কিছু জানান  যাতে সে ইমপ্রেস হয়ে কাজটি আপনাকে দিতে বাধ্য হয় ।

বিড করার পর 

এবার আপনি চাইলে Freelancer এর অফিশিয়াল Android  APP ব্যবহার করে আরো সহজে কাজ করতে পারবেন।

ডাউনলোড করে লগিন করুন আর আজ থেকেই নিজেকে দক্ষ হিসাবে গড়ে তোলার চেষ্টা করুন।


মনে রাখবেন পরিশ্রম সৌভাগ্যের প্রসূতি।

যদি আপনাদের কোন সাহায্যে আসতে পারি তবে নিজেকে ধন্য মনে করবো তাই কমেন্টে মতামত জানাতে ভুলবেন না কিন্তু।

আজকের মত বিদায় দেখা হবে অন্য কোন দিন নতুন কিছু নিয়ে। 

সৌজন্যে: Cyber Prince