নরকের ৭২ ডেমন । পর্ব ৫

Views


কিং সলোমন এর বশকৃত ৭২ ডেমনের উপর সিরিজের আর পঞ্চম পর্ব। আজকের ডেমন “মারবাস”

5. Marbas

“মারবাস” লিস্টের পঞ্চম ডেমন । মারবাস আরও অনেক নামে পরিচিত যেমন বারবাস, মারবুয়েল, বারবুয়েল, বারবিয়েল ইত্যাদি। তবে সে মারবাস এবং বারবাস এই দুইটা নামে বেশি পরিচিত। বারবাস শব্দটি ল্যাটিন “বারবা” শব্দ থেকে এসেছে যার অর্থ “দাড়ি”।

ডেমন হওয়ার আগে “মারবাস” একজন এঞ্জেল ছিল। সে একজন ফলেন এঞ্জেল। “মারবাস” মারকিউরি সিল যুক্ত অর্থাৎ সে হল প্রেসিডেন্ট। হেল এর পূর্ব অংশের শাসক সে। তার অধীনে ৩৬ লিজিয়ন ডেমন আছে।
ডেমন এর র‍্যাংক এর প্রেসিডেন্ট পদ আর আমাদের প্রচলিত প্রেসিডেন্ট পদ এর মধ্যে তফাৎ আছে। আজকের যুগে প্রেসিডেন্ট মানে মনে করা হয় কোনো জাতীর প্রধান যে কিন্তু এখানে প্রেসিডেন্ট অর্থ ভিন্ন। এখানে ডেমনদের একজন প্রেসিডেন্ট পদের মানে হল সে কোনো সামাজিক, শিক্ষা বিষয়ক কিংবা পলিটিক্যাল গ্রুপ এর লিডার । “মারবাস” এর প্রেসিডেন্ট হওয়ার কারণ সে মেকানিক্স এবং ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষার প্রধান।  

মধ্য এপ্রিল এ “মারবাস” সবথেকে শক্তিশালী হয় । মারবাস কে ডাকার উপযুক্ত সময় হল বুধবার দিনের বেলা। মারবাস কে ডাকতে যেসব উপকরণ লাগে তা হলঃ
মোমবাতি, মারবাস এর কমলা কালার এর সিল, বিভিন্ন রকমের তেল, চিকোরি এর শিকড়, ৪ টা রত্ন, পারদ, টিন ইত্যাদি।
“মারবাস” কে যখন ডাকা হয় তখন সে অনেক বড় ও ভয়ংকর সিংহের রূপে আসে। এটা তার ডেমনিক রূপ। এরপর সামনকারী অনুরোধ করলে সে মানুষের রুপ ধরে। এছাড়া সে যেকোনো রুপ ধরতে পারে। যারা মারবাস কে দেখেছে দাবী করে তাদের কথা অনুযায়ী মারবাস মাঝারী উচ্চতার বাদামী চোঁখ এবং কালো চুল বিশিষ্ট

৭২ ডেমনের অনেক ডেমনই কিছু না কিছু শেয়ায় কিন্তু মারবাস এর ফোকাস শুধুমাত্র মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ । সে শুধু এই নিয়েই চর্চা করে। হিউম্যান বডি ম্যাকানিক্স  ও তার পারদর্শীতার একটা ক্ষেত্র। মনে করা হয় যে তার এ বিষয়ে জ্ঞানের কাছে মানুষের বর্তমান বিজ্ঞান কিছুই না। “মারবাস” শুধু এ বিষয়ে জ্ঞানী না সে এ বিষয়ে জ্ঞান দান ও করে।
“মারবাস” এর অন্যান্য ক্ষমতার মধ্যে রয়েছে সে সব গোপন জিনিস জানে। কোথায় কি লুকানো আছে তার সব খবর সে জানে। হিডেন এবং সিক্রেট বিষয় গুলো সব তার জানা। এমনকি “ফিলোসফারস স্টোন” এর খবর ও মারবাস জানে।
মারবাস একজন শেইপ শিফটার । সে নিজে যেকোনো রূপ ধারন করতে পারে সেই সাথে সামনকারীকেও অন্য রূপ দান করতে পারে। সামনকারীকে সে এই ক্ষমতা দান করেনা। সামনকারী যদি অনুরোধ করে তবেই সে তাকে অন্য রূপ দেয়। তবে আবার আগের রূপে ফিরিয়ে আনা টা মারবাস এর ইচ্ছা সে আনতেও পারে নাও পারে।
মারবাস এর সবথেকে বড় ক্ষমতা হল সে যেকোনো রোগ দান করতে পারে আবার তা থেকে মুক্তি ও দিতে পারে। তাকে ব্যবহার করে কাউকে যেকোনো রোগে ফেলা যায় আবার তা থেকে মুক্তি দেওয়া যায়। এই ক্ষমতার কারণেই মারবাস কে সবথেকে বেশী ডাকা হয়। তবে কাউকে রোগে ফেলানোর জন্য মারবাস কে ডাকা খুব ঝুঁকিপূর্ণ কারণ এই স্পেল এর উলটা রিয়েকশন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে অনেক বেশী।
এছাড়া তার আরেকটি গুণ হল সে যা বলে সত্যি বলে। সে সত্যবাদি হিসেবে পরিচিত।
১ম ছবি “মারবাস” এর সিল ও অন্যটা তার কাল্পনিক চিত্র।




Post a Comment

0 Comments

close