Torrent কি? কিভাবে কাজ করে? চলুন জেনে নেই (পর্ব ২)



আজ বলবো কিভাবে টরেন্ট দিয়ে ডাউনলোড করবো মুভি। আমি android এর মেথড বলবো। তবে কম্পিউটারেও একই মেথড শুধু software ভিন্ন। 


Step 1- Torrent Clint ডাউনলোড করা। টরেন্ট ক্লায়েন্ট হচ্ছে একটা  software যেইটি দিয়ে টরেন্ট ডাউনলোড করতে হয়। যেমন মুভি বা অন্য কিছু ডাউনলোডের জন্যে আপনাকে uc/chrome/opera ব্রাউজার ব্যাবহার করতে হয় তেমনি টরেন্ট থেকে কিছু ডাউনলোডের জন্যে ক্লায়েন্ট সফটওয়্যারটি থাকা আবশ্যক। অনেক ক্লায়েন্ট software আছে প্লে স্টোরে। তবে ভালোমানের হচ্ছে U torrent. (Screenshot 1)। প্লে স্টোরে সার্চ দিলেই সবার আগে পেয়ে যাবেন। তাই ডাউনলোড করে ফেলুন। U torrent না ব্যাবহার করতে চাইলে Bit torrent ডাউনলোড করতে পারেন। (কম্পিউটারেও একই সফটওয়্যার আছে। একটু গুগল করে খুজে নিন)


Step 2- টরেন্ট সার্চ ইঞ্জিন বা হোস্ট সাইট যেতে হবে। সবচেয়ে বেশি বিখ্যাত সাইট হচ্ছে thepiratebay ডট org এই সাইট। গুগল ক্রোমে এই সাইটে প্রবেশ করুন। এইখানে প্রবেশের পর সার্চবারে আপনি যা ডাউনলোড করবেন তা লিখে সার্চ দিন। যেমন আমি Justice League মুভিটা ডাউনলোড দিবো। তাই আমি Justice League লিখে সার্চ দিচ্ছি।( স্ক্রিন শট- ২) আরেকটা কথা এটা গুগল না। তাই বানান ঠিক থাকা গুরুত্বপূর্ণ। 


দেখবেন আপনার সার্চের রিজাল্ট এসে গেছে। (স্ক্রিন শট-৩)। যদি না আসে তবে আবার সার্চ দিন। কারন এই সাইটগুলা খুবই স্লো হয়। কিছু সময় ভালো কাজ করে না। কিছু সময় বানান ঠিক থাকার পরও আসে না। তাই কিছুক্ষন অপেক্ষা করে আবার সার্চ দিন। কাজ হবেই। 


অতঃপর স্কিনশট- ৩ এর SE মার্ক করা জায়গায় ক্লিক করেন। দেখবেন সবচেয়ে বেশি সিডার যুক্ত ফাইলের লিস্ট চলে আসবে। (স্ক্রিনশট-৪)। নিচে সাইজ লেখা আছে ছোট করে দেখেন। আপনার যেইটা ইচ্ছা শেইটায় ক্লিক করেন। টাইটেলে রেজুলেশন লেখা আছে।  আমি 720 p ডাউনলোড করবো তাই প্রথমটাই সিলেক্ট করলাম।


ওই ফাইলের ডিটেইল চলে এসেছে দেখুন।(স্ক্রিনশট-৫)।  স্ক্রল ডাউন করে দেখে নিন ফাইলের রেজুলেশন কত, ফ্রেম কত করে।  বিস্তারিত সব ই আছে। 

এখন ফাইলটি ডাউনলোডের একাধিক উপায় আছে।


উপায় ১- স্ক্রল করলে দেখবেন একটা ম্যগনেটের পাশে Get Torrrent লেখা আছে।(ক্রিনশট -৬)।ওই ম্যাগ্নেটের উপর ক্লিক করেন। দেখবেন।আপনার প্রথমে ডাউনলোড করা clint সফটওয়্যার (utorrent) এ নিয়ে গেছে।(আপনাকে একটা ad এর ভিডিও দেখাইতে পারে তাই ভয় পাইয়েন না).(স্ক্রিনশট-৭) ব্যাস। আপনার ডাউনলোড শুরু হয়ে গেছে।


উপায় ২- স্ক্রিনশট -৬ এ দেখুন  get torrent এর জায়গায় দেখুন লেখা আছে Get torrent file. ওইটায় ক্লিক করেন। আপনার ফোনে/ পিসি তে খুব কম সাইজের(কয়েক কিলোবাইট) একটা ফাইল ডাউনলোড হয়েছে। আপনি ফাইল ম্যানেজারে গিয়ে ওই ফাইল যেখানে ডাউনলোড হয়েছে সেখানে যান। (স্ক্রিনশট-৮)।  মার্ক করা জায়গায় ক্লিক করেন। দেখবেন  হুবুহ স্ক্রিনশট ৭ এর মতো আপনার ক্লায়েন্ট software এ নিয়ে যাবেন। ব্যাস আপনার ডাউনলোড শুরু হয়ে যাবে।(ad দেখাবে একটা এই সময়)।

ডাউনলোড শেষ হলে আপনি ফাইল ম্যানেজার থেকে ফাইলটি কাট করে অন্য কোন ফোল্ডারে রেখে দিন। তারপর utorrent এ এসে হিস্টোরি ক্লিয়ার করে দেন। ব্যাস কাজ শেষ।

এখন কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথা বলবো।  মনোযগ দিয়ে পড়েন। 

সুবিধা: 
১- প্রায় সব কিছু ডাউনলোড দিতে পারবেন।
২- স্পিডের সমস্যা নাই।
৩- বিনামুল্যে সব পাবেন।
৪- আপনার পছন্দের ফাইল আপনার পছন্দের রেজুলেশনে পাবেন। আপনার পছন্দের সাইজে পাবেন।
৫- নতুন মুভি সবার আগে অন্য সব সাইটের আগে পাবেন। এটা সবচেয়ে বড় সুবিধা।

অসুবিধা:
১- অজনপ্রিয় ফাইলে সিডার নাই। তাই ডাউনলোড দিতে পারবেন না। 
২- টরেন্ট কোন অবৈধ পক্রিয়া নয়। তবে টরেন্ট থেকে কোন কপিরাইটেড ফাইল ডাউনলোড করা হচ্ছে পাইরেসি। আর পাইরেসি একটা অপরাধ। তাই সিকিউরিটির জন্যে যে কোন একটা vpn software ব্যাবহার করতে পারেন। এতে আপনার পরিচয় গোপন থাকবে। তবে ভাই বাংলাদেশের পুলিশদের এসব নিয়ে মাথা ব্যাথা নেই বললেই চলে। 
৩- আপনি যদি সীমিত প্যাকের ডেটা ব্যাবহার করেন তবে সাবধানে ব্যাবহার কইরেন। কারন আপনি শুধউ ডাউনলোড না আপ্লোডও করছেন। তাই আপনি যদি কোন ফাইলের সাইজ ১ জিবি দেখেন তখন আপনি ভেবে রাখবেন ফাইলটি ডাউনলোড করতে আপনার প্রায় ১১০০ mb লাগবে। তাই একটু সাবধানতা অবলম্বন করবেন এসব ব্যাপারে।

কয়েকটি জনপ্রিয় টরেন্ট সাইট

1. thepiratebay.org
2. rarbg.to
3. 1337x. to
4. torrentz2.au
5. yts.am (মুভির জন্যে ভালো, বাট সিডার দেখা যায় না)
6. eztv.ag
7. limetorrents.cc

ব্যাস এতটুকুই। ধন্যবাদ। আবার পোস্ট করবো নতুন কিছু নিয়ে। কারো প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করেন। ইনবক্সে সমস্যা না বলাই ভালো।


Post a Comment

0 Comments

close