হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সবাই ভালো আছেন আজ হাজির হয়ে গেলাম অদ্ভুত এক টপিক নিয়ে আলোচনা করার জন্য যার টাইটেল Suicide Plant - Gympie Gympie কেন এ নিয়ে লিখতে যাচ্ছি বিস্তারিত পড়ুন বুঝে যাবেন।




এমন কি কখনো শুনেছেন বা ভেবেছেন যে একটি গাছ কিংবা পাতা স্পর্শ করার কারনে মানুষ আত্মহত্যা করতে পারে শুধু তাই নয় এর সংস্পর্শে এলে প্রানীরাও আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়ে যায়।



এর কারন কি তা বলছি জেনে নিনঃ


প্রথমত এই গাছের পাতায় রয়েছে অধিকহারে Neurotoxin বা  বিষ যা ছুয়ে ফেললে ১৫ মিনিটের মাথায় একজন সুস্থ মানুষের মৃত্যু ঘটাতে সক্ষম তবে তার প্রয়োজন হয়না কারন এই পাতা ছুয়ে ফেলার সাথে সাথে শরীরে আরম্ভ হয়ে যায় Acid এবং Electrocuted এর অনুভূতি যা মানুষ হোক আর প্রানীই হোক তাকে তীব্র যন্ত্রনা দিয়ে পাগল করে দিবে আর সেই কষ্ট সহ্য করতে না পেরে মানুষ কিংবা প্রানীরা করে ফেলে আত্মহত্যা কারন তাদের কাছে তখন মরনটাই এর থেকে বাঁচার উপায় বলে মনে হয়ে থাকে।


শুধু তাই নয় একটি করুন অভিজ্ঞতা দিয়েছিল Cyril Bromley নামে এক ব্যক্তি যে কিনা WWII Training এর সময় হাসপাতালে অসহনীয় যন্ত্রনা নিয়ে ভর্তি হয় ১৯৬৩ সালে সে তার সিনিয়র কর্মকর্তা কে জানায় যে সে Gympie Gympie এর পাতা টয়লেট পেপার হিসাবে ব্যবহার করে ফেলেছিলেন তারপর থেকে তার এই অবস্থা। সে এই অসহনীয় ব্যথা তাকে ১৯৬৫ সাল পর্যন্ত ভুগতে হয়।
তাহলে বুঝতেই পারছেন যে এই পাতা ছুয়ে ফেলা মানে কত বড় ভুল করে ফেলা।

এর থেকে বাচা সম্ভব কিন্তু এর যন্ত্রনা সহ্য না করতে পেরে মানুষ কিংবা প্রানী আত্মহত্যা করে ফেলে।
আর যদি বেঁচেও যায় তবে তা অনেক কষ্ট দায়ক হয়ে পড়ে। আর মূলত এই কারনে একে Suicide Plant হয়ে যায় এর নাম।


এই Gympie Gympie গাছে ফল ধরে এবং তা খাওয়াও যায় তবে কথা হলো কে চাইবে এই মারাত্মক ঝুকি নিতে কারন তা যতই মজাদার হোক না কেন।


এই গাছ পাওয়া যায় Australian Rainforest এ তাই বলে ঝুকিমুক্ত ভাববেন না বাংলাদেশের কোন পাগল উদ্ভিদ প্রেমী এই গাছ এনে বাংলাদেশে রোপন করে দেয় নি তো.....।।

তাহলে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না কিন্তু কেমন লাগলো আজকের এই ভিন্ন রকম আয়োজন।
এই পোষ্ট হতে বিদায় দেখা হবে অন্য কোন দিন নতুন কিছু নিয়ে।

সৌজন্যেঃ Dark Magician
Share To:

Cyber Prince

Post A Comment:

0 comments so far,add yours